আজ শনিবার, ২৩ অক্টোবর ২০২১, ০১:০৪ পূর্বাহ্ন

Logo
সংবাদ শিরোনাম:
অসাম্প্রদায়িক চেতনায় বাংলাদেশকে গড়তে চাই: প্রধানমন্ত্রী ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ বাতিলের দাবি লক্ষ্মীপুরে শেখ রাসেলের জন্মদিনে আলোচনা সভা ও আনন্দ মিছিল লক্ষ্মীপুরে শেখ রাসেল দিবস পালন লক্ষ্মীপুরে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে জেলেকে হত্যার অভিযোগ লক্ষ্মীপুরে দ্বিতীয় শ্রেনীর ছাত্রীকে ধর্ষন ও হত্যা মামলায় একজনের মৃত্যুদন্ড লক্ষ্মীপুরে সে শিক্ষকের বিরুদ্ধে থানায় মামলা, হচ্ছেন বরখাস্ত! ওমানে ঘূর্ণিঝড়ে লক্ষ্মীপুরে তিনজনের মৃত্যুতে দিশাহারা পরিবার মাদ্রাসার ৬ শিক্ষার্থীর চুল কাটলেন শিক্ষক,সমালোচনার ঝড় মিথ্যা ও গুজবে ভরপুর সোশ্যাল মিডিয়া তবুও ভালো কিছু খুঁজছে পুলিশ-আইজিপি
পদ্মা সেতু: বসলো ৪০তম স্প্যান,বাকী আর একটি,দৃশ্যমান ৬হাজার মিটার

পদ্মা সেতু: বসলো ৪০তম স্প্যান,বাকী আর একটি,দৃশ্যমান ৬হাজার মিটার

নিজস্ব প্রতিবেদক:

৪০তম স্প্যান বসানোর মধ্যে দিয়ে দৃশ্যমান হয়েছে পদ্মা সেতুর ৬ হাজার মিটার অর্থাৎ ৬কিলোমিটার অংশ। শুক্রবার সকাল ১০টা ৫৮ মিনিট মুন্সীগঞ্জের মাওয়া অংশে মাঝ নদীতে সেতুর ১১ ও ১২ নং পিয়ারে বসানো হয় স্প্যানটি। ৩৯তম স্প্যান বসানোর সাত দিনের মাথায় বসানো হলো ৪০তম স্প্যানটি। ৬.১৫কিলোমিটারের মূল সেতুতে মোট ৪১টি স্প্যানের মধ্যে বাকি রইলো আর মাত্র একটি স্প্যান।

পদ্মা সেতুর নির্বাহী প্রকৌশলী (মূলসেতু) দেওয়ান আব্দুল কাদের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, বৃহস্পতিবার কুমারভোগ কনস্ট্রাকশন ইয়ার্ড থেকে ১৫০মিটার দৈর্ঘ্যের স্প্যানটি বহন করে ভাসমান ক্রেন তিয়াইন-ই নির্ধারিত পিয়ারে কাছে নিয়ে নোঙর করে রাখা হয়েছিল।

বাকি ছিলো শুধু স্প্যানটি উপরে তুলে বসানোর কাজ। শুক্রবার সকাল ৯টা ২০মিনিটে স্প্যানটি উপরে তোলার কাজ শুরু হয়। এরপর ইঞ্চি মেপে নির্ধারিত পিয়ারের উপর ভূমিকম্প সহনশীল বিয়ারিং ধীরে ধীর বসানো হয়। পুরো কাজ শেষ করতে সময় লাগে ২ঘন্টার মত সময়।

৪০তম স্প্যানটি বসে যাওয়া এখন ১২ ও ১৩ নম্বর পিয়ারে সর্বশেষ ৪১তম স্প্যান স্প্যান ‘২-এফ’ বসানোর পরিকল্পনা রয়েছে প্রকৌশলীদের। আগামী ১৬ ডিসেম্বর মহান বিজয় দিবসের মধ্যে বাকি থাকা স্প্যানটি বসানো হতে পারে বলে সংশ্লিষ্ট একাধিক সূত্রে জানা গেছে।

এদিকে স্প্যান বাসানো ছাড়াও অন্যান্য কাজও এগিয়ে চলেছে। এরমধ্যে সেতুতে ১৮শতাধিক রেলওয়ে ও ১২শতাধিক রোড ওয়েস্ল্যাব বসানো হয়েছে।

২০১৪ সালের ডিসেম্বরে পদ্মা সেতুর নির্মাণকাজ শুরু হয়। ২০১৭ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর ৩৭ ও ৩৮ নম্বর খুঁটিতে প্রথম স্প্যান বসানোর মধ্য দিয়ে দৃশ্যমান হয় পদ্মা সেতু। এরপর একে একে বসানো হয় ৪০টি স্প্যান। এতে দৃশ্যমান হয়েছে সেতুর ৬কিলোমিটার অংশ। ৪২টি পিলারে ১৫০ মিটার দৈর্ঘ্যের ৪১টি স্প্যান বসিয়ে ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার দীর্ঘ পদ্মা সেতু নির্মাণ করা হবে।

সব কটি পিয়ার এরই মধ্যে দৃশ্যমান হয়েছে। মূল সেতু নির্মাণের জন্য কাজ করছে চীনের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান চায়না মেজর ব্রিজ ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি (এমবিইসি) ও নদীশাসনের কাজ করছে দেশটির আরেকটি প্রতিষ্ঠান সিনো হাইড্রো করপোরেশন।দুটি সংযোগ সড়ক ও অবকাঠামো নির্মাণ করেছে বাংলাদেশের আবদুল মোমেন লিমিটেড।

৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার দীর্ঘ এ বহুমুখী সেতুর মূল আকৃতি হবে দোতলা। কংক্রিট ও স্টিল দিয়ে নির্মিত হচ্ছে এ সেতুর কাঠামো। নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হওয়ার পর আগামী ২০২১ সালেই খুলে দেয়া হবে পদ্মা সেতুর।


© স্বত্ব ২০২০ | About-US | Privacy-PolicyContact