আজ শুক্রবার, ১৫ জানুয়ারী ২০২১, ০৬:১৮ পূর্বাহ্ন

Logo
সংবাদ শিরোনাম:
লক্ষ্মীপুরে রামগতিতে বাবা-মাকে বেঁধে মেয়েকে গন ধর্ষন,একজন গ্রেপ্তার

লক্ষ্মীপুরে রামগতিতে বাবা-মাকে বেঁধে মেয়েকে গন ধর্ষন,একজন গ্রেপ্তার

নিজস্ব প্রতিবেদক, রামগতি (লক্ষ্মীপুর )
লক্ষ্মীপুরে রামগতিতে বাবা-মাকে বেঁধে ও মারধর করে গৃহবধুকে গনধর্ষন করেছে একদল যুবক। গুরুতর আহত অবস্থায় নির্যাতিত ওই নারীকে উদ্ধার করে প্রথমে রামগতি উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্্ের ও পরে সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। আজ সোমবার সকালে তাকে সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

রাত আড়াইটার দিকে উপজেলার চরসেকান্তর এলাকায় এঘটনা ঘটে। পরে ওই এলাকায় অভিযান চালিয়ে মিরাজ হোসেন নামে এক যুবককে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। তবে গনধর্ষনের প্রাথমিক সত্যতা পাওয়া গেছে। ওই নারীর শরীরের আঘাতের চিহ্র রয়েছে বলে জানিয়েছেন সদর হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার ডা. জয়নাল আবেদিন।
পুলিশ ও নির্যাতিতার পরিবার জনান, রামগতি উপজেলার চরসেকান্তর এলাকায় বাবার বাড়িতে মা-বাবার সাথে বসবাস করে ওই নারী। রবিবার রাত আড়াইটার দিকে কয়েকজন যুবক ঘরে প্রবেশ করে সবাইকে জিম্মি করে। পরে গৃহবধুর মা-বাবাকে মারধর করে বেধেঁ রেখে পালাক্রমে গনধর্ষন করে গুরুতর আহত অবস্থায় রেখে পালিয়ে যায় তারা।

এক পর্যায়ে তাদের শোর-চিৎকার শুনে প্রতিবেশীরা এগিয়ে এসে পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে ওই নারীকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্্ের ভর্তি করে। পরে অবস্থার অবনতি হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বর্তমানে সদর হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে ওই নির্যাতিত নারী।

সদর হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার ডা. জয়নাল আবেদিন বলেছেন, ওই নারী গনধর্ষনের শিকার হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে সত্যতা মিলছে। এছাড়া নারীর শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহৃ রয়েছে। ডাক্তারী পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর প্রতিবেদন দেয়া হবে।

রামগতি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. সোলাইমান হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, গনধর্ষনের ঘটনায় মিরাজ হোসেনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অন্যদের গ্রেপ্তার অভিযান ও মামলার প্রস্তুুতি চলছে। ওই নির্যাতিত নারীকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্্র ও পরে সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।


© স্বত্ব ২০২০ | About-US | Privacy-PolicyContact