আজ বুধবার, ২০ জানুয়ারী ২০২১, ০৫:৪৬ অপরাহ্ন

Logo
সংবাদ শিরোনাম:
করোনায় নৈতিক বিপর্যয়ের মুখে পৃথিবী: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা টেলিভিশন ও মঞ্চ অভিনেতা মুজিবুর রহমান দিলু আর নেই দেশে করোনায় আরো ২০ জনের মৃত্যু মানিকগঞ্জে সাবেক ইউপি সদস্য হত্যা মামলায় পাঁচজনের ফাঁসির আদেশ পিকে হালদারের উপহার দেয়া সাড়ে চার কোটি টাকার ফ্ল্যাটেই থাকতেন অবন্তিকা বড়াল বিএনপি বারবার প্রতারণা ও চাতুর্যের আশ্রয় নিচ্ছে: ওবায়দুল কাদের খালেদা জিয়াকে মুক্তকরা-গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের শপথ বিএনপির: মির্জা ফখরুল রামগঞ্জের ভোলাকোট ইউপি চেয়ারম্যান পদটি শূণ্য ঘোষণা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বেই দেশ হবে উন্নত-সমৃদ্ধ: রাষ্ট্রপতি লালমনিরহাটে ট্রাকচাপায় দুই পুলিশ নিহত
চিরনিদ্রায় শায়িত বিশিষ্ট সাংবাদিক মিজানুর রহমান খান

চিরনিদ্রায় শায়িত বিশিষ্ট সাংবাদিক মিজানুর রহমান খান

নিজস্ব প্রতিবেদক:

বিশিষ্ট সাংবাদিক, প্রথম আলোর যুগ্ম সম্পাদক মিজানুর রহমান খানকে স্বজন, সহকর্মী ও বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষের শ্রদ্ধা ও ভালোবাসায় তিনদফা জানাজা শেষে সমাহিত করা হলো । মঙ্গলবার দুপুরে মিরপুরের শহীদ বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে বিশিষ্ট তাকে দাফন করা হয়।

মিজানুর রহমানের মরদেহবাহী গাড়িটি বেলা দেড়টার কিছু আগে কবরস্থানে পৌঁছায়। সেখানে তার স্ত্রী, সন্তান, পরিবারের সদস্য, আত্মীয়স্বজন ও প্রথম আলোর সহকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। এর আগে সকালে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির প্রাঙ্গণে প্রথম জানাজা অনুষ্ঠিত হয় মিজানুর রহমানের। পরে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে দ্বিতীয় ও জাতীয় প্রেসক্লাব প্রাঙ্গণে তৃতীয় জানাজা হয়। এসময় তাকে বহনকারী কফিনে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান দীর্ঘদিনের সহকর্মীরা।

পরে কারওয়ান বাজারে দৈনিক প্রথম আলো কার্যালয়ের সামনে নেয়া হয় মিজানুর রহমানকে। সেখানে প্রথম আলোর সম্পাদক মতিউর রহমানসহ সহকর্মীরা এই বরেণ্য সাংবাদিকের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। এ সময় তার বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করে দোয়া করা হয়।

শেষবারের মতো নিজের কর্মস্থলে মিজানুর রহমানের নিথর দেহ নিয়ে অ্যাম্বুলেন্সটি পৌঁছালে সেখানে এক শোকাবহ পরিবেশের সৃষ্টি হয়। সহকর্মীদের অনেকেই এ সময় কান্নায় ভেঙে পড়েন।

এর আগে আজ সকাল ১০টার দিকে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি প্রাঙ্গণে মিজানুর রহমান খানের প্রথম জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে জানাজায় সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি, আইনজীবী ও সাংবাদিকেরা অংশ নেন। জানাজা শেষে মিজানুর রহমান খানের প্রতি ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানানো হয়।

সোমবার সন্ধ্যায় রাজধানীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মিজানুর রহমান খান মারা যান। তার বয়স হয়েছিল ৫৩ বছর। তিনি মা, স্ত্রী, তিন সন্তান, পাঁচ ভাই, তিন বোনসহ অসংখ্য আত্মীয়স্বজন ও গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

মিজানুর রহমান খান করোনাভাইরাসে সংক্রমিত হয়েছিলেন। তার নমুনা পরীক্ষায় গত ২ ডিসেম্বর করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসে। তিনি ৫ ডিসেম্বর গণস্বাস্থ্য নগর হাসপাতালে ভর্তি হন। তার শারীরিক সমস্যা বাড়লে সেখান থেকে ১০ ডিসেম্বর তাকে মহাখালীর ইউনিভার্সেল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

সেখানে তাকে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) রেখে চিকিৎসা দেওয়া হয়। শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে গত শনিবার বিকালে তাঁকে লাইফ সাপোর্টে নেয়া হয়। সোমবার সন্ধ্যা ৬টা ৫ মিনিটে তাকে মৃত ঘোষণা করেন দায়িত্বরত চিকিৎসক।


© স্বত্ব ২০২০ | About-US | Privacy-PolicyContact