আজ বুধবার, ১৪ এপ্রিল ২০২১, ০৪:৪৪ অপরাহ্ন

Logo
সংবাদ শিরোনাম:
লক্ষ্মীপুর-ভোলা নৌ-রুটে ফেরী চলাচল ব্যাহত, দুই পাড়ে ৫শ গাড়ি পারাপারের অপেক্ষায় দেশজুড়ে সর্বাত্মক লকডাউন আজ পহেলা বৈশাখ,উৎসবহীন নতুন বছর কর্মহীন পরিবহন শ্রমিকদের মাঝে নোয়াখালী পৌরসভার উদ্যোগে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ বৈশাখ উদযাপন ঘরেই, জীবনের মূল্যই বেশি: জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণে প্রধানমন্ত্রী কমলনগরে সাবেক ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে গৃহবধূকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ মহাসড়কের যানজট,ঢাকা ছাড়ছে মানুষ মূল্যবৃদ্ধির কারণে মানুষের জীবনে হাহাকার আর ত্রাহি অবস্থা বিরাজ করছে: ফখরুল বিএনপি এখন সন্ত্রাস ও গুজবনির্ভর রাজনীতির চর্চা করছে: ওবায়দুল কাদের লাইফ সাপোর্টে সাবেক আইনমন্ত্রী আব্দুল মতিন খসরু
লক্ষ্মীপুরে রায়পুরে আগুনে পুড়ে ২৮ দোকান ছাই, ১৫ কোটি টাকার ক্ষতি

লক্ষ্মীপুরে রায়পুরে আগুনে পুড়ে ২৮ দোকান ছাই, ১৫ কোটি টাকার ক্ষতি

নিজস্ব প্রতিবেদক,লক্ষ্মীপুর
লক্ষ্মীপুরের রায়পুর উপজেলার খাসেরহাট বাজারে আগুন লেগে ২৮টি দোকান পুড়ে গেছে। ব্যবসায়ীদের দাবি, আগুনে প্রায় ১৫ কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। আজ মঙ্গলবার ভোর ৪টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের দুইটি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌঁঁেছদুই ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন্ নিয়ন্ত্রনে আনে। তবে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারনা করছে ফায়ার সার্ভিস। খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও থানার ওসিসহ জন প্রতিনিধিরা ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন।

পুড়ে যাওয়া দোকানগুলো মালিক হলো আবদুল বারেক, আবদুল গনি, সুজন সরকার, ইউসুফ মাঝি, বাচ্চু গাজি, শাহজাহান, মোঃ সুমন, দুলাল মালতিয়া, মোঃ সুজন, আইয়ুব আলী আকন্দ, আবদুল কাদের, শাহ আলম মাঝি, আবু তাহের, মোঃ মোস্তফা, নুর মোহাম্মদ, মোঃ শাহজালাল, রাসেল কারি, মোঃ সোহাগ, মুজাম্মেল, আবুল খায়ের, সবুজ বেপারি, আবদুল কাদের, মোস্তফা বেপারি ও খোরশেদ মুন্সিসহ ২৮ দোকান পুড়ে ছাই হয়ে যায়। এসব দোকানে মুদি, কাপড়, সেলুন, ইলেক্ট্রনিক্স, স্বর্ণালংকার, কাঁচাবাজার ইত্যাদিসহ ব্যবসা করতেন তাঁরা।
এ দিকে কিস্তি থেকে ঋণ নিয়ে সবুজ নামের এক ব্যবসায়ী এ ঘটনা সহ্য করতে না পেরে হর্দযন্ত্রক্রীয়া বন্ধ হয়ে গুরুতর অসুস্থ হলে তাকে সরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ী বাচ্চু গাজি ও নুর মোহাম্মদ বেপারি বলেন, আমাদের বাজারের ২৮টি দোকান পুড়ে যাওয়ায় ব্যবসায়ীদের প্রায় ১৫ কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে। অধিকাংশ ব্যবসায়ীই বিভিন্ন ব্যাংক থেকে লোন নিয়ে ব্যবসা করছেন। সরকার ক্ষতিগ্রস্ত এসব ব্যবসায়ীকে সহযোগিতা না করে তা হলে তাদের পথে বসতে হবে।

রায়পুর ফায়ার স্টেশনের ইনচার্জ ওয়াসি আজাদ বলেন, রাত ৪টার দিকে আবু তাহেরের চায়ের দোকান থেকে আগুনের সূত্রপাত ঘটে। দোকানঘরগুলো কাঠ ও টিনের হওয়ায় মুহূর্তের মধ্যে আগুন চারদিকে ছড়িয়ে পড়ে। ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউনিট ঘটনাস্থলে ছুটে গিয়ে স্থানীয় জনগণের সহায়তায় প্রায় ২ ঘণ্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা হয়। তবে ধারণা করা হচ্ছে, বৈদ্যুতিক ত্রুটি থেকে এ আগুন লেগেছে। ক্ষয়ক্ষতি নিরুপণের কাজ চলছে।

রাযপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাবরীন চৌধুরী বলেন, আগুনের ঘটনা শুনেই ভোর ৪টার দিকে ইউপি চেয়ারম্যান ও পুলিশ নিয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে যাই। তাৎক্ষনিকভাবে ক্ষতিগ্রস্থদের তালিকা সংগ্রহ করা হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্থদের খুব দ্রুত প্রশাসনিকভাবে সহায়তা করা হবে।


© স্বত্ব ২০২০ | About-US | Privacy-PolicyContact