আজ শনিবার, ২৪ Jul ২০২১, ০৭:৩০ অপরাহ্ন

Logo
লক্ষ্মীপুরে দুই চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ, ভাংচুর,আহত ১০

লক্ষ্মীপুরে দুই চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ, ভাংচুর,আহত ১০

নিজস্ব প্রতিবেদক:
লক্ষ্মীপুরে কমলনগর উপজেলার তোরাবগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন নিয়ে দুই চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এসময় উভয় পক্ষের ১০জন আহত হয়েছে। আহতদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্্র ও সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আজ রোববার বিকেলে ওই ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান ও আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী ফয়সাল আহমদ রতন ও আওয়ামীলীগের প্রার্থী মির্জা আশরাফুল ইসলাম রাসেল সমর্থকদের মধ্যে এ সংঘর্ষ হয়।
পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, বিকেলে ফয়সাল আহমদ রতনের পক্ষে গনসংযোগে নামেন নেতাকর্মীরা। এসময় আশরাফুল ইসলাম রাসেলের লোকজন বাধা দেয়। এতে দু-পক্ষের মধ্যে পাল্টা ধাওয়া ও সংঘষের ঘটনা ঘটেছে। এসময় দুইটি অফিস ভাংচুর করার দাবী করে দুপক্ষ। সংঘর্ষে উভয় পক্ষের ১০জন আহত হয়।
তোরাবগঞ্জ ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান ও চেয়ারম্যান প্রার্থী ফয়সাল আহমদ রতনের সমর্থকরা রোববার বিকেলে ৭নং ওয়ার্ডে গনসংযোগ করে। এসময় আওয়ামীলীগের চেয়ারম্যান প্রার্থী আশরাফুল ইসলাম রাসেলের সমর্থকরা তাদের নেতাকর্মীদের ওপর অতর্কিতভাবে হামলা চালায়। এসময় রতনের সমর্থক কামাল উদ্দিন,সাবেক ইউপি সদস্য জবিউল্যাহ, রাসেল হোসেন ও আনোয়ার উল্যাহসহ ৬জন আহত হয়। এছাড়া নির্বাচনী কার্যালয় ভাংচুর করার অভিযোগ করেন চেয়ারম্যান প্রার্থী ফয়সাল আহমদ রতন।
অপরদিকে আওয়ামীলীগের চেয়ারম্যান প্রার্থী মির্জা আশরাফুল ইসলাম রাসেলের দাবী, ফয়সাল আহমদ রতনের লোকজন তার গনসংযোগ চলাকালীন সময়ে অতর্কিতভাবে হামলা চালিয়ে রুবেল হোসেন,সোহেল ও নাছির উদ্দিনসহ কয়েকজন আহত হয়। এছাড়া তার নির্বাচনী অফিস ভাংচুর করার অভিযোগ করেন তিনি।
কমলনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. মোসলেহ উদ্দিন জানান, দুই চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ পাঠানো হয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে রয়েছে। এ বিষয়ে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।


© স্বত্ব ২০২০ | About-US | Privacy-PolicyContact