আজ বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৫:২৩ অপরাহ্ন

Logo
সংবাদ শিরোনাম:
লক্ষ্মীপুরে চারসন্তানসহ মায়ের বিষপানে আত্মহত্যার চেষ্টা বসতভিটি বিক্রি না করায় মুক্তিযোদ্ধা লাঞ্চিত,প্রতিবাদে বিক্ষোভ একাদশ-দ্বাদশের ফল মিলিয়ে এইচএসসির ফলাফল লক্ষ্মীপুরে চারদিন পর দুই সন্তান ও মায়ের খোঁজ মিলেছে লক্ষ্মীপুরে নদী ভাঙ্গন রোধে বাঁধ উদ্বোধন করেছেন এমপি নুরউদ্দিন চৌধুরী নয়ন লক্ষ্মীপুরে মেঘনার ভয়াবহ ভাঙ্গনে মাটি চাপা পড়ে নিখোঁজ-১,জীবিত উদ্ধার -৩ প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন ঘিরে ‘থ্যাংক ইউ পিএম’ ক্যাম্পেইন ডিসেম্বরের মধ্যে আরো ১০ কোটি মানুষ টিকা পাবেন: স্বাস্থ্য সচিব লক্ষ্মীপুরে টিউবওয়েল বসাতে গিয়ে রশি ছিড়ে শ্রমিকের মৃত্যু লক্ষ্মীপুর জেলা আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর প্রশিক্ষণার্থীর মধ্যে সনদ বিতরন
লক্ষ্মীপুরে মেঘনার ভয়াবহ ভাঙ্গনে মাটি চাপা পড়ে নিখোঁজ-১,জীবিত উদ্ধার -৩

লক্ষ্মীপুরে মেঘনার ভয়াবহ ভাঙ্গনে মাটি চাপা পড়ে নিখোঁজ-১,জীবিত উদ্ধার -৩

নিজস্ব প্রতিবেদক:
উত্তর ও মধ্যাঞ্চলের বন্যার পানির চাপ ও মেঘনা নদীর পানি অস্বাভাবিক বৃদ্ধির কারণে লক্ষ্মীপুরের রামগতি ও কমলনগর উপজেলার কয়েকটি এলাকায় নতুন করে দেখা দিয়েছে মেঘনার ভয়াবহ ভাঙ্গন। শনিবার বিকেলে রামগতির জারীদোনা মাছঘাট এলাকায় নদীরপাড়ে মাটি ধসে ৪জন চাপা পড়ে। এসময় তিনজনকে জীবিত উদ্ধার করতে পারলেও নিখোঁজ রয়েছেন আবদুল মালেক। নিঁেঁখাজ আবদুল মালেক উপজেলার বালুচর সোনালী গ্রামের বাসিন্দা বলে জাানা গেছে।

স্থানীয়রা জানায়, শনিবার বিকেলে আবদুল মালেকসহ চারজন জারীদোনা এলাকায় নদীরপাড়ে বসে নদীর ঢেউ দেখছিলেন। হঠাৎ করে জোয়ারের ¯্রােতে নদীপাড়ের মাটি ধসে যায়। এতে আবদুল মালেক,ইছমাইল হোসেন ও জিয়াদ হোসেনসহ ৪জন মাটি চাপা পড়ে। পরে স্থানীয়রা তিনজনকে জীবিত উদ্ধার করতে পারলেও বৃদ্ধ আবদুল মালেক মাটি চাপা পড়ে নিখোঁজ হয়। এ খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের একটি ডুবুরীদল নদীতে উদ্ধার অভিযান শুরু করে। রোববার দুপুর পর্যন্ত নিখোঁজ আবদুল মালেককে উদ্ধারে অভিযান চালাচ্ছে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরীদল। এখনো তাকে উদ্ধার করতে পারেনি।

নিঁেখাজ আবদুল মালেকের ছেলে মিল্লাত হোসেন জানান, বাবার খোঁজে নদীর পাড়ে রাত-দিন অপেক্ষার প্রহর গুনছেন। বাবার লাশটুকু যেন দেখতে পান পরিবারের সদস্যরা,সেটাই তাদের দাবী। হঠাৎ করে নদীর ঢেউয়ে মাটি চাপা পড়ে বাবা নিখোঁজ হবে,এটা ভাবতে কষ্ট হয়।
লক্ষ্মীপুর ফায়ার সার্ভিসের ডিপুটি সহকারী পরিচালক মো. লিটন আহম্মেদ জানান, শনিবার বিকেল থেকে রোববার দুপুর পর্যন্ত জারী দোনা এলাকা মেঘনা নদীতে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরীদল অভিযান চালিয়েছে। কিন্তু নদীতে তীব্র ¯্রােত থাকায় উদ্ধার অভিযান চালাতে অনেক হিমশিম খেতে হচ্ছে। তারপরও আমাদের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

রামগতি থানার ওসি মো. সোলাইমান হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, নিখোঁজ আবদুল মালেককে উদ্ধারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। নদীতে তীব্র ¯্রােতের কারনে উদ্ধার অভিযান চালানো যাচ্ছেনা।

এদিকে ভাঙ্গনে দিশাহারা হয়ে পড়েছেন নদীতীরের মানুষ। গত এক সপ্তাহে রামগতি ও কমলনগর এ দুই উপজেলার প্রায় তিন শতাধিক মানুষ ঘরবাড়ি হারিয়ে অন্যত্র বসবাস করছেন। হুমকির মুখে রয়েছে ১০ কিলোমিটার এলাকার কয়েকটি গ্রাম। বিশেষ করে ভাঙ্গনের কবলে পড়েছে কমলনগর উপজেলার সাহেবেরহাট, পাটওয়ারীরহাট, চরফলকন, নাছিরগঞ্জ বাজার, মাতব্বরহাট, লুধুয়া ও রামগতি উপজেলার বাংলাবাজার, আসলপাড়া, জারীদোনা,গাবতলী ও বড়খেরীসহ ১২টি এলাকার প্রায় ১০ কিলোমিটার এলাকাজুড়ে। ইতিমধ্যে ভাঙ্গনরোধে সরকার সাড়ে ৩১ কিলোমিটার বেড়িঁবাধের জন্য তিন হাজার ৯০ কোটি টাকার একটি প্রকল্প অনুমোদন দিয়েছেন। সে অনুযায়ী এখন ২৬টি প্রকল্পের মাধ্যমে দরপত্র আহবানের কাজ চলছে। আগামী ডিসেম্বরের আগে উক্ত বেড়িঁবাধের কাজ শুরু করার আশা করছেন লক্ষ্মীপুর পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. ফারুক আহমেদ।


© স্বত্ব ২০২০ | About-US | Privacy-PolicyContact