আজ বৃহস্পতিবার, ২০ জানুয়ারী ২০২২, ০৫:৫৮ অপরাহ্ন

Logo
সংবাদ শিরোনাম:
লক্ষ্মীপুরে দুই প্রার্থীদের মধ্যে সংঘর্ষ,আহত,৬,গাড়ি ভাংচুর, ৩৯জন অস্ত্রসহ আটক

লক্ষ্মীপুরে দুই প্রার্থীদের মধ্যে সংঘর্ষ,আহত,৬,গাড়ি ভাংচুর, ৩৯জন অস্ত্রসহ আটক

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি:

লক্ষ্মীপুরে রায়পুরে দক্ষিণ চরবংশীর পশ্চিম চরলক্ষ্মী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোট কেন্দ্রে দুই ইউপি সদস্য প্রাথীর সর্মথকদের মধ্েয ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও সংর্ঘষের ঘটনা ঘটেছে। এসময় ইউপি সদস্য প্রাথী খালেকুজ্জামানসহ ছয়জন আহত হয়। সকাল সাড়ে নয়টার দিকে ইউপি সদস্র প্রার্থী আলমগীর হোসেন মোহাম্মমদ আলী ও খালেকুজ্জান খালেকের সমর্থকদের মধ্েয এ ঘটনা ঘটে। আলমগীর হোসেন মোহাম্মদ আলী তার সমর্থকদের নিয়ে ভোট কেন্দ্রে যাওয়ার সময় অপর প্রার্থী খালেকুজ্জামান খালেক বাধা দেয়। এতে দুই পক্ষের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষ হয়।

এর আগ একই সময়ে রামগঞ্জর বাদুর ইউপির আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী ও স্বতন্ত্র ইউপি চেয়ারম্যান প্রাথী জাহিদ হোসেনের গাড়িতে হামলা ও ভংচুর করা হয়েছে। সকাল সাড়ে নয়টার দিকে হানুবাইশ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোট কেন্দ্রের সামনে এ ঘটনা ঘটে। অপরদিকে নির্বাচনে সহিংসতার আশংকায় বাদুর ইউপির বিভিন্ন স্হানে অভিযান চালিয়ে ৩৯জনকে অস্ত্র সহ গ্রেপ্তার করা হয়। ভোররাতে ওই এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়। এসময় তাদের কাছ থেকে দেশীয় তৈরি একটি এলজি ও চোরা,রামদা উদ্ধার করা হয়।

রামগঞ্জ থানার ওসি মো. আনোয়ার হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, নির্বাচনে সহিংসতার করার জন্য বাদুর ইউনিয়নের মধ্য বাদুরসহ বিভিন্ন স্থানে অবস্থান নেয়। পরে গোপনস সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ ওই এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৩৯জনকে আটক করে। এসময় তাদের কাছ থেকে এলজিসহ দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করা হয়। সুষ্ঠ নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য প্রশাসন কঠোর অবস্থানে রয়েছে।

লক্ষ্মীপুর পৌরসভা ও রায়পুর ও রামগঞ্জ উপজেলার ২০ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন শান্তিপর্ণূভাবে ভোট গ্রহন শুরু হয়। সকাল আটটায় থেকে শুরু হয় এ ভোট। তবে পুরেুষের চেয়ে নারীদের উপস্থিতি বেশি। এছাড়া নৌকার এজেন্ট ছাড়া অন্য চেয়ারম্যান প্রার্থীদের এজেন্টদের বের করে দেয়ার অভিযোগ করেছেন আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী ও স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থীরা। তবে এসব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন নৌকার চেয়ারম্যান প্রার্থী। প্রতিটি কেন্দ্রকে ঝুকিপূর্ণ ঘোষনা করে সুষ্ঠ ও শান্তিপূর্ণ ভোট গ্রহনের লক্ষ্য ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। প্রতিটি কেন্দ্রে আইনশৃংখলা বাহিনীর পাশাপাশি নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের টহল অব্যাহত রয়েছে।

লক্ষ্মীপুর পৌরসভার ২৮টি কেন্দ্রের মধ্যে ২৫টিকে অতিগুরুত্বপর্ণ। এছাড়া রায়পুর ও রামগঞ্জ উপজেলার ২০টি ইউনিয়নের ১৯২টি কেন্দ্রের মধ্যে বেশিরভাগ কেন্দ্রে ঝুকিঁপূর্ণ। সে অনুযায়ী প্রতিটি কেন্দ্রে ব্যাপক আইনশৃংখলা বাহিনী নিয়োজিত রয়েছে। ইতিমধ্যে রায়পুর উপজেলায় তিন ইউপিতে চেয়ারম্যান এবং দুই উপজেলায় সংরক্ষিত মহিলা ও পুরুষ পদে ১৬জন সদস্য বিনা প্রতিদ্বন্ধিতায় নির্বাচিত হন।

এছাড়া ১৭ ইউপিতে চেয়ারম্যান পদে ৭৮জন, ২০টি ইউপিতে সংরক্ষিত মহিলা ও পুরুষ সদস্য পদে ৯শ ৮৫জন প্রার্থী নির্বাচনী মাঠে প্রতিদ্বন্ধিতায় করেন। এছাড়া লক্ষ্মীপুর পৌরসভায় ৪জন মেয়র ও একশ সংরক্ষিত মহিলা ও পুরষ কাউলিন্সর মাঠে ছিল


© স্বত্ব ২০২০ | About-US | Privacy-PolicyContact