আজ রবিবার, ১৬ জানুয়ারী ২০২২, ১১:৪১ অপরাহ্ন

Logo
সংবাদ শিরোনাম:
দেশ দখল করে রেখেছে আ.লীগ: আমির খসরু

দেশ দখল করে রেখেছে আ.লীগ: আমির খসরু

নিজস্ব প্রতিবেদক: বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন, আওয়ামীলীগ কিছু সরকারী কর্মকর্তা, দুর্নীতি বাজদের নিয়ে দেশ দখল করে রেখেছে। তারাই দেশ চালাচ্ছে। আওয়ামীলীগ ভোট চুরি করে ক্ষমতায় এসেছে। তারা আবার ভোট চুরির পরিকল্পনা করতেছে। বৃহস্পতিবার বিকেলে লক্ষ্মীপুর জেলা বিএনপির আয়োজিত জনসভায় জেলা আউটডার স্টেডিয়াম মাঠে বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি ও সুচিকিৎসার দাবিতে মহাসমাবেশে এ মন্তব্য করেন তিনি।

আমির খসরু বলেন, যখন সমস্ত দেশ উত্তাল হয়েছে, গণতন্ত্রের মাকে মুক্ত করার আন্দোলনে, তখন আওয়ামীলীগ নির্বাচন কমিশন গঠনের বিষয়ে আলোচনার কথা বলছে। আগামী নির্বাচনের জন্য নির্বাচন কমিশন গঠন করার জন্য রাষ্টপতির আলোচনার ডাক দিয়েছেন। আগামী নির্বাচনে কিভাবে ভোট চুরি করবে, সে বিষয়ে তারা আলোচনা করবে। এটা ভোট ডাকাতির আলোচনার ১ম পর্ব।

জনগণের ভোট কেড়ে নেওয়ার জন্য এ আলোচনায় যারা যাবেন, তারা দেশের মানুষের ভোটাধিকার, গণতন্ত্র, বাক স্বাধীনতা কেড়ে নেবার পক্ষে অবস্থান নিচ্ছেন। কিন্তু বিএনপি ভোট ডাকাতদের সাথে কোন আলোচনায় যাবে না। দেশের মানুষ নিবিড়িভাবে পর্যালোচনা করছে, ভোট ডাকাতির আলোচনায় কারা কারা যাচ্ছে।

তিনি বলেন, আমি বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি এ সরকারের কাছে চাইবো না। আমরা আন্দোলনের মাধ্যমে তাকে মুক্ত করবো। তারেক জিয়া দেশে ফিরে আসলে কারো পালানোর সুযোগ থাকবে না। বিএনপির নেতাকর্মীরা তারেক জিয়ার নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ ভাবে আন্দোলন করে এ সরকারের পতন ঘটাবে।

এ লক্ষ্মীপুরের মানুষ অন্দোলনের জন্য প্রস্তুত আছে। প্রয়োজনে জীবন দিতেও রাজি আছে। আমিও জীবন দিতে প্রস্তুত। জেলা বিএনপির আহ্বায়ক শহীদ উদ্দীন চৌধুরী এ্যানির সভাপতিত্বে এতে প্রধান বক্তা ছিলেন, কেন্দ্রীয় বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবের রহমান শামীম, বিশেষ বক্তা ছিলেন, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক জালাল আহমেদ মজুমদার, হারুন অর রশিদ ভিপি।

বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা আবুল খায়ের ভূইয়া, কেন্দ্রীয় বিএনপির সহ-শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক সম্পাদক এবিএম আশরাফ উদ্দিন নিজান প্রমুখ। সভা পরিচালনা করেন জেলা বিএনপির সদস্য সচিব সাহাবুদ্দিন সাবু এবং যুগ্ম আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট হাসিবুর রহমান।

সমাবেশে জেলা, উপজেলা, পৌরসভা, ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড পর্যায়ের বিএনপি,যুবদল,ছাত্রদল, স্বেচ্ছাসেবকদল ও কৃষকদলসহ অঙ্গসংগঠনের হাজারো নেতাকর্মীরা এ সমাবেশে অংশ নেয়। ২০১২ সালের পর বিএনপির প্রকাশ্যেএ প্রথম জনসভা করা হয়।


© স্বত্ব ২০২০ | About-US | Privacy-PolicyContact